কাউকে জারজ বলা মানষিকবিকৃতির পরিচয়

মানুষকে মানুষ জারজ বলে গালি দেয়াটা ভুল!

কোনো মানুষের সাথে যদি অন্য মানুষের মতানৈক্য হয় তাহলেই একটা গালি বেড়িয়ে আসে মুখ থেকেঃ জারজ বা জারজের বাচ্চা। এই গালি সব থেকে বেশি ব্যবহার করে থাকে ইসলাম ধর্মালম্বিরা। জারজ বলতে বুঝায় বেজন্মা। এখন একজন মানুষকে জারজ গালি দেয়ার অধিকার আপনাকে কে দিয়েছে? আর আপনি কিভাবে বুঝলেন যে সে জারজ? একজন মানুষ যে জারজ তার কোনো দলিল আছে নাকি সে জারজ না তার কোনো দলিল আছে? একজন মানুষ জারজ বা জারজ নয় তার কোনো দলিল নাই। আবার পুরুষতান্ত্রিক মৌলবাদী মানষিকতার মানুষেরা বলে ধর্মিয় রীতিতে বিয়ে না করলে সে জারজ হয় এরকম বক্তব্য দিয়ে থাকেন। অনেকে বলে পরোকিয়াতে যদি কোনো সন্তান জন্য গ্রহণ করে তবে সে জারজ। বস্তিতে জন্ম নিছে সে জারজ। রাস্তার পাশে জন্ম নিছে সে জারজ। জারজ না জারজ এর সনদ এখন আপনাদের কাছ থেকে নিতে হবে নাকি? মনে চাইল একজন মানুষকে জারজ বানিয়ে দিলাম আবার আমার মতের সাথে মিলে গেল তাকে ভাল বলে দিলাম। সমাজে ভালো মন্দ উভয় ব্যক্তিকেই জারজ গালি শুনতে হয়। যদি সে ভাল হয় তবে যারা খারাপ তারা গালি দিয়ে যায় আবার যদি খারাপ হয় তবে ভদ্র সমাজ তাকে জারজ গালিটা ছুড়ে দেয়।

  • একজন মানুষ জারজ না তা কোনো ধর্ম তার সনদ দেয় না, দেয় সে কোন ধর্মালম্বির তার প্রমাণ।
  • একজন মানুষ জারজ না কোনো বিবাহ বা বিবাহ রেজিস্টারি তার সনদ দেয় না, দেয় তার পিতামাতা বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছে তার প্রমাণ।
  • একটি জন্ম সনদ কখনোই সনদ দেয় না যে সে জারজ না, দেয় তার জাতীয়তা, নাম, পিতার নাম, মাতার নাম, জন্ম তারিখ এসবের প্রমাণ।
  • একটি জাতীয় আইডি কার্ড  একজন ব্যক্তি জারজ নআ তার সনদ দেয় না, দেয় তার পরিচয়ের প্রমাণ।

একজন মানুষ সে জারজ নয় তার সনদ সে নিজেই। তার শরীরে তার পিতামাতারই রক্ত বইতেছে। তার শরীরে যে জিন আছে যে টিস্যু আছে তা তার পিতামাতা থেকেই আগত। তার শরীরের প্রতিটি অঙ্গপ্রত্যঙ্গ, DNA & RNA, সেল সবই তার পূর্ব পুরুষের জানান দেয়। যখন কেউ সন্তান নিয়ে টানাটানি করে দাবি করে আসল পিতা/মাতার তখন কেউ যখন কোনো প্রমাণ দিতে না পারে তখন সেই ব্যক্তিকেই প্রয়োজন হয় প্রমাণ হিসেবে। সেই ব্যক্তির DNA এর পরীক্ষা করানো হয় সত্যতা যাচাই করার জন্য। তার DNA এর সাথে যার মিল হবে সেই হবে আসল মাতা/পিতা।

  • যখন একজনজন মানুষের পিতা/মাতার পরিচয়ে সঠিক বিচার দিতে ব্যর্থ হয় তখন ধর্ম কেন সঠিক বিচার দিতে পারল না?
  • যখন একজন মানুষের পিতা/মাতার পরিচয়ে সঠিক বিচার দিতে ব্যর্থ হয় তখন কেন জন্ম সনদ সঠিক বিচার দিতে পারল না?
  • যখন একজন মানুষের পিতা/মাতার পরিচয়ে সঠিক বিচার দিতে ব্যর্থ হয় তখন কেন জারজ বলে গালি দেয়া লোকগুলো সঠিক বিচার দিতে পারল না?
  • যখন একজন মানুষের পিতা/মাতার পরিচয়ে সঠিক বিচার দিতে ব্যর্থ হয় তখন কেন সমাজ সঠিক বিচার দিতে পারল না?

যখন একজন মানুষের পিতা/মাতার পরিচয়ে সঠিক বিচার দিতে ব্যর্থ হয় তখন সেই ব্যক্তিরই প্রমাণ হয় তখন ধর্ম কে জারজ বলার? অপর একজন মানুষ কে জারজ বলার? সমাজ কে জারজ বলার? কারো বিন্দুমাত্র অধিকার নাই জারজ বলার।

আর যদি বলেন রাস্তার পাশে জন্ম ড্রেনের পাশে জন্ম সে জারজ। আমি বলব তার আগে এভাবে জন্ম হবার কারণ জেনে নিন।

  • হতে পারে তার পিতা খুব গরিব তার থাকা খাওয়ার সামর্থ্য খুবই কম।
  • হতে পারে তার মাকে মানসিক বিকারগ্রস্ত মানুষ ধর্ষণ করে ছিল।
  • হতে পারে তার মাকে তার বাবা পথের নামিয়ে দিয়েছিল।
  • হতে পারে তার বাবা খারাপ কাজে জড়িত ছিল তার সন্তান যাতে ভাল হয় তাই সে আশ্রয় নিয়েছিল এসব স্থানে।

এখানে দেখা যাচ্ছে পুরুষরা এবং পুরুষতান্ত্রিক মানসিকতাই বেশি দায়ী।

পৃথিবীতে সব মানুষই সমর্থ রাখে নিজেকে প্রমাণ করার যে সে জারজ না। পৃথিবীর সব মানুষই প্রমাণ যে জারজ না, পৃথিবীর সকল মানুষের DNA & RNA সেল প্রমাণ দেয় সে জারজ না। তখন কারোরই অধিকার নাই জারজ বলার। কেউই হুট করে আসেনি যে বেজন্মা বলবেন। এই পৃথিবীতে সবাই না জারজ এর প্রমাণ। জারজ কথাটা আপেক্ষিক এবং পুরুষতান্ত্রিক মনোভব মাত্র। যারা জারজ বলে গালি দিবে তারা বুদ্ধি প্রতিবন্ধী, মানষিক বিকৃতি ও হীন মন্যতারই পরিচয় দেয়। যদি কোনো ব্যক্তি সত্যিই চিন্তাভাবনা করে কথা বলতে যার তবে জারজ বলে গালি দেয়াটাও তার কাছে অপরাধ এর মতোই লাগবে। হয়ত সে হতে পারে সল্প শিক্ষিত তাই বলে জারজ বলে গালি! এর থেকে খারাপ আর কি-ই বা হতে পারে। তাই বিবেক দিয়ে কথা বলুন। আর কাউকে জারজ বলার আগে অনুগ্রহ করে আগে ১০ বার চিন্তা করে নিন। ধন্যবাদ

Share:
All rights reserved by Kid Max.